বাংলায় লিখি

বুধবার, আগস্ট ০৪, ২০১০

শামসুর রহমান থেকে

গাঁয়ের নদীর তীরে একজন বাউল আমাকে
একদিন ' এদেশে আলোর কথা ভুলে থাকে লোক;
বড় বেশি অন্ধকার ঘাঁটে আর নখের আঁচড়ে
গোলাপ-কলিজা ছেঁড়ে পরস্পর', বলেছিল হেসে

---খেলনার দোকানের সামনে ভিখিরি


যেমন নতুন চারা পেতে চায় রোদবৃষ্টি তেমনি
আমাদের অমর্ত্যের প্রয়োজন ছিল আজীবন
তোমার প্রশান্ত রূপ ঝরেছিল তাই সূর্যমুখী
চেতনার সৌরালোকে রাজনীতি প্রেমের সংলাপে

আমার দিনকে তুমি দিয়েছ কাব্যের বর্ণচ্ছটা
রাত্রিকে রেখেছ ভরে গানের স্ফুলিঙ্গে, সপ্তরথী
কুত্সিতের ব্যূহ ভেদ করবার মন্ত্র আজীবন
পেয়েছি তোমার কাছে | ঘৃণার করাতে জর্জরিত
করেছি উন্মত্ত বর্বরের অট্টহাসি কি আশ্বাসে |

প্রতীকের মুক্ত পথে হেঁটে চলে গেছি আনন্দের
মাঠে আর ছড়িয়ে পরেছি বিশ্বে তোমারি সাহসে |
..ব্যাং ডাকা ডোবা নয়, বিশাল সমুদ্র হতে চাই |
এখনো তোমারই মত উড়তে চেয়ে কাদায় লুটিয়ে
পড়ি বারবার, ভাবি অন্তত পাঁকের কোকিলের
ভূমিকায় সফলতা এলে কিছু সার্থক জনম |

-- রবীন্দ্রনাথের প্রতি

লেবেলসমূহ:

0টি মন্তব্য:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

এতে সদস্যতা মন্তব্যগুলি পোস্ট করুন [Atom]



এই পোস্টে লিঙ্ক:

একটি লিঙ্ক তৈরি করুন

<< হোম